জেনে নিন গিয়ার লিভারের P, R, N, D, S/L এর মিনিং

Published on 9 June, 2022

☑️ P (Park)

★ গিয়ার লকড হয়ে যাবে।

★চাকা সামনে পেছনে কোন রোটেশন করবেনা।

★ গাড়ি পার্ক করা থাকলে, জ্যামে আটকে থাকলে এটা ব্যাবহার করা হয়।

☑️ R (Reverse)

★ চাকা পেছনের দিকে ঘুরবে।

★গাড়িকে পেছনের দিকে মুভ করতে ব্যাবহার করা হয়।

☑️ N (Neutral)

★ চাকা সামনে পেছনে যে কোন দিকে ঘুরতে পারবে ইভেন ইঞ্জিন অফ থাকলেও।

★ খুব অল্প সময়ের জন্য ট্রাফিকে থাকলে অথবা গাড়িকে কিছুক্ষণ ইঞ্জিন চালু অবস্থায় স্থির রাখতে হলে এটা ব্যাবহার করা হয়।

☑️ D (Drive)

★ সোজা কথায় গাড়ি চালানোর জন্য এটা ব্যাবহার করা হয়।

☑️ S (Sport)

★লো ট্রান্সমিশনে হাই টর্ক আউটপুট দেয়।

★নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে গাড়ি স্পোর্টলি চালাতে এটা ব্যাবহার করা হয়।

☑️ L (Low)

★ ট্রাকশন কন্ট্রোল বেড়ে যায়।

★ অল্প স্পীডে বেশী পাওয়ারের দরকার হলে এটা ব্যাবহার করা হয় যেমন কোন গর্ত থেকে গাড়িকে টেনে তুলতে।

☑️ OD (Over Drive)

★ খুব রাফলি চালাতে হলে OD অন করতে হয়।

★ 60 কিমি বেশী স্পীডে চললে OD অন রাখতে পারেন এটা গাড়িকে ইনস্ট্যান্ট স্পীড দিবে।

✨রানিং অবস্থায় D থেকে সরাসরি R দিলে কি হবেঃ

এরকম কোনোদিন হবে না। কারণ ব্রেকে পা না রাখলে গিয়ার লিভার কাজ করবে না। চলন্ত অবস্থায় শুধু D এবং S এর মাঝে যেকোনো একটায় শিফট করা যায়, অন্যগুলোতে শিফট করা যায় না।

✨OD অনেক গাড়িতে দেখা যায়না কেনোঃ কারন এখন অনেক গাড়িতে অটোমেটিক OD আসে। গাড়ি নিজেই ঠিক করে নেয় কখন OD তে চলবে।

Tags: